সারা ভারত কৃষি ও গ্রামীণ মজুর সমিতির কর্মসূচী ৯ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর গ্রামে গ্রামে গ্রামসভা

গত ৯ আগস্ট হুগলির পোলবার বালিটানা গ্রামে অনুষ্ঠিত হল আয়ারলা রাজ্য কমিটির বৈঠক। আয়ারলা ভুবনেশ্বর বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসারে ৯ আগস্ট থেকে ৭ নভেম্বর চলছে তিন মাসের বিশেষ গণসংযোগ ও গণ উদ্যোগ অভিযান। এই অভিযানের সূচনায় আয়ারলা রাজ্য কমিটির সদস্যদের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে এবং সারা বাংলা আদিবাসী অধিকার ও বিকাশ মঞ্চের সাথে যৌথভাবে বিশ্ব আদিবাসী দিবসে ধনেখালির ফিডার রোড থেকে মল্লিকপুর পর্যন্ত আদিবাসী সহ গ্রামীণ দরিদ্রদের দাবিসনদ নিয়ে মিছিল ও প্রচার কর্মসূচি সংগঠিত হয়

বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্তগুলি নিম্নরূপ —

৯ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত গ্রামে গ্রামে আয়ারলার উদ্যোগে চলবে গ্রাম সভা সংগঠিত করার কাজ। গত লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত ব্যবস্থা অচলাবস্থায় রয়েছে। বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে সংঘর্ষ, বিশেষত ‘কাটমানি’ নিয়ে গ্রামীণ অসন্তোষের কারণে পঞ্চায়েতে পঞ্চায়েতে সমস্ত সংস্কার কর্মসূচি বন্ধ থাকছে। গ্রামসভার বৈঠক বন্ধ আছে। পরিস্থিতির সুযোগ নিতে চাইছে বিজেপি। এমতাবস্থায় আয়ারলার উদ্যোগে গ্রামের মানুষদের সাথে সরাসরি কথা বলে, তাদের সামিল করে গ্রাম সভা সংগঠিত করতে হবে। এই সভাগুলিতে মানুষের বক্তব্য শোনার উপর বেশি গুরুত্ব দিতে হবে এবং স্থানীয় দাবিগুলিতে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচি গ্রহণ করতে হবে। আমাদের দিক থেকে বক্তব্য রাখার সময় জনগণের অধিকারগুলি সম্পর্কিত কর্মসূচিগুলি ছাড়াও দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে হবে, কাশ্মীর প্রসঙ্গ থেকে আরএসএস, সাম্প্রদায়িক ফ্যাসিবাদ, দলিত-আদিবাসী- সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন, আর্থিক পরিস্থিতি সবই ধৈর্য ধরে আলোচনা করতে হবে।

এলাকার বাসিন্দাদের স্থির করে দেওয়া স্থানীয় দাবিতে পঞ্চায়েত/ব্লক ডেপুটেশন আগামী ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সংগঠিত করতে হবে।

আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর রাজ্যের সর্বত্র জেলা সদরে জেলাশাসকের দফতরের সামনে বিক্ষোভ ডেপুটেশন কর্মসূচি পালন করা হবে। ৪ নভেম্বর ‘কলকাতা চলো’ অভিযান সংগঠিত হবে।

খণ্ড-26
সংখ্যা-25
22-08-2019