৩০ জুলাই গণকনভেনশনে যোগ দেবে এআইপিএফ

aipf

কলকাতা ১৮ জুলাই সারাভারত জনমঞ্চ (এআইআইএফ) স্টেট ক্যাম্পেন কমিটির গুরুত্বপূর্ণবৈঠকে রাজ্যে ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে প্রচার আন্দোলন এবং ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদের লক্ষ্যে ৩০ জুলাই গণকনভেনশনে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

নির্বাচন পরবর্তী রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনায় সারা রাজ্য বিশেষ করে উত্তর ২৪ পরগণা জেলায় ক্রমাগত ঘটে যাওয়া সাম্প্রদায়িক হিংসা গভীর উদ্বেগের কারণ হিসাবে দেখা দিয়েছে। সভার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হল প্রশাসনের আরও কঠোর ব্যবস্থা, বাহুবলীদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ এবং দুস্কৃতি দমনে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। একই সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রস্তুত করে মুখ্যমন্ত্রী কাছে পাঠানো হবে। আগস্ট ক্রান্তির মাসে এআইপিএফ ব্রিটিশ দালালদের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্র ও শান্তির স্বপক্ষে কাকিনাড়া অঞ্চলে পদযাত্রা করবে। মহানগরে জলসংকট তীব্র হচ্ছে। বিশেষভাবে অ্যাডেড অঞ্চলের পরিস্থিতি খুব খারাপ। এআইপিএফ মনে করে শুধু কলকাতা শহর নয়, রাজ্যের স্বাস্থ্য, পরিবেশ, শিক্ষা এবং মানবাধিকার বিষয়ে পুর্নাঙ্গ তথ্যসমৃদ্ধ দলিল আমাদের প্রস্তত করতে হবে এবং আন্দোলনের সুচনা করতে হবে। কলকাতা শহরে এনআরসি বিষয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করা হবে এবং এনআরসি-র রাজনৈতিক উদ্দেশ্য জনসাধারণের সামনে প্রকাশ করা হবে।

৩ আগস্ট ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে বারাসত শহরে এক বিক্ষোভ কর্মসূচী নেওয়া হয়েছে। উদ্যোক্তা ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে গণকণ্ঠ। সারাভারত জনমঞ্চ এই কর্মসূচীতে অংশ নেবে। ১৭-১৮ আগস্ট ভিলাইতে জাতীয় প্রচার টিমের বৈঠক থেকে ফিরে আসার পর রাজ্য ক্যাম্পেইন বডির পুনরায় সভা হবে এবং সেখান থেকেই সিদ্ধান্তগুলির কার্যকর করার পদক্ষেপ ঠিক করা হবে। সভায় সভাপতিত্ব করেন এআইপিএফ-এর আহবায়ক বিজ্ঞানী শ্রী তুষার চক্রবর্তী।

খণ্ড-26
সংখ্যা-22
25-07-2019