পূর্বস্থলীতে ব্লক ডেপুটেশন

Purbasthali

গত ২২ জুলাই পূর্বস্থলী ২ং ব্লকে ডেপুটেশন সংগঠিত করা হয়। পাটুলী স্টেশন থেকে মিছিল করে ব্লক অফিসে যাওয়া হয়। মিছিলের শেষে বিডিও অফিসের সামনে বক্তব্য রাখেন অশোক চৌধুরী। প্রতিনিধি হিসেবে বিডিও অফিসের ভেতরে আলোচনায় অংশ নেন জেলা কমিটি সদস্য সজল পালের নেতৃত্বে বিনয় মন্ডল ও এরিয়া সম্পাদক শিবু সাঁতরা, এরিয়া কমিটির সদস্য হরিকমল দাস ও একজন গ্রামীণ মজুর মহিলা কমরেড। দাবি ছিল — (১) প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘরের তালিকা জন সমক্ষে প্রকাশ করতে হবে। এই প্রকল্পের অর্থনিয়ে দলবাজি দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। উপভোক্তাদের থেকে টাকা আত্মসাৎ এর বিরুদ্ধে তদন্ত করে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। বাস্তু ও ঘর মানুষের মৌলিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে। (২) কর্মনিশ্চয়তা প্রকল্পের মাষ্টাররোল প্রকাশ করতে হবে। ভূয়া মাষ্টাররোল টাকা আত্মসাৎ-এর বিরুদ্ধে তদন্ত করে বিচারের ব্যবস্থা করতে হবে। বছরে ২০০দিন কাজ ও ন্যূনতম মজুরি কার্যকরী করতে হবে। সমস্ত সরকারি প্রকল্পের উপভোক্তাদের তালিকা প্রকাশ্যে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। উপভোক্তাদের থেকে দালাল, ধান্ধাবাজ নেতা ও অসৎ সরকারি কর্মচারিদের ঘুষ বা বখরা নেওয়া বন্ধ করতে হবে। (৩) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে ক্ষেত মজুর, অনথিভুক্ত বর্গাদার, পাট্টাহীন খাস জমি চাষ করা গরিব কৃষক বিশেষ করে চরের জমির চাষি পরিবারদের সরকারী সুযোগ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। চরের জমির জরিপ করে পাট্টা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। (৪) খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পে রেশন ডিলারদের রশিদ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। পরিবার পিছু মাসে ৫০ কেজি খাদ্য শস্য ও অন্যান্য সামগ্রী সস্তা দরে সরবরাহ করতে হবে। (৫) বহুমুখী হিমঘর স্থাপন ও গরিবদের কম দামে বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে হবে। ব্লকের পার্থেনিয়াম বিনাশ করার ব্যবস্থা করতে হবে।

আলোচনার সময় বিডিও-র কাছে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার জন্য উপভোক্তাদের থেকে টাকা নেওয়ার এবং শৌচাগার ও ১০০ দিনের কাজের টাকা আত্মসাৎ করার তালিকা তুলে ধরে তদন্তের দাবি করা হয়। ঘরের তালিকায় নাম তোলার জন্য আবেদন করা উপভোক্তাদের যাচাই করে তালিকায় নাম তোলার ব্যবস্থা করা হল না কেন জবাব চাওয়া হয়েছে। সবশেষে উপস্থিত জনতার কাছে বিনয় মন্ডল এর বক্তব্যের মাধ্যমে কর্মসূচি সমাপ্ত করা হয় ।

খণ্ড-26
সংখ্যা-22
25-07-2019