বেলঘরিয়ায় মিড ডে মিল ডেপুটেশন

Randhan Karmi

২৩ মে লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর গেরুয়া বাহিনীর দাপট বেড়ে চলেছে। ‘জয়শ্রীরাম’ ধ্বনি দিয়ে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করেছে। শাসক দলের বীরপুঙ্গবরা গেরুয়া বাহিনী দেখলেই পগারপার হয়ে যাচ্ছে। ঠিক সেই সময় ৭ জুন বেলঘরিয়া স্টেশন থেকে ‘এআইসিসিটিইউ’ অনুমোদিত পশ্চিমবঙ্গ সংগ্রামী রন্ধনকর্মী (মিড-ডে-মিল) ইউনিয়নের নেতৃত্বে প্রতিবাদী মিছিল বেলঘরিয়া ফিডার রোড হয়ে কামারহাটি পৌরসভায় গেটের সামনে উপস্থিত হয়। মিছিল চলাকালীন রাস্তার দুধারে মানুষ উৎসুক নয়নে দেখছিলেন কিছু শ্রমজীবী মহিলা নিজেদের দাবি নিয়ে পৌরসভা অভিযান করছেন। মিছিলে ১৮০০০ টাকা মজুরি, ৬০০০টাকা পেনশন, সামাজিক সুরক্ষা সহ অন্যান্য দাবি নিয়ে মিছিলে শ্লোগান ওঠতে থাকে।

পৌরসভার গেটের সামনেও বেশ কিছুক্ষণ ধরে বিক্ষোভ চলতে থাকে। এরপর ৬ জনের প্রতিনিধি দল চেয়ারম্যানের কাছে স্মারকলিপি জমা দেয়। পৌরসভার প্রধানকে তিনটি দাবির প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। দাবিগুলো ছিল: (১) মাসিক সাম্মানিক বৃদ্ধি করা। (২) উৎসব ভাতা অনুদান হিসাবে দেওয়া। (৩) তিনটি রান্নার কেন্দ্রে শৌচাগার সংস্কার করা। চেয়ারম্যান কিছু বিষয় প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। দেখা যাক সামনের দিনে কি হয়।

প্রতিনিধি দলে ছিলেন শিখা গুহরায় আহবায়ক, শোভনা মুখার্জী, মনিকা লোধ, সীমা মুখার্জি, মিড-ডে-মিল কর্মী; জয়শ্রী দাস রাজ্য সভানেত্রী এবং এআইসিসিটিইউ-র জেলা সম্পাদক নবেন্দু দাশগুপ্ত।

খণ্ড-26
13-06-2019